পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় দূর্বার তারুণ্যের ‘আমরা মালি’

159

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘আমার যত্নে, আমার গাছ’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশের জনপ্রিয় সামজিক সংগঠন দূর্বার তারুণ্য ‘ আমরা মালি’ নামক একটি ব্যতিক্রমী কার্যক্রম উদ্বোধন ঘোষণা করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাই উপজেলাধীন মঘাদিয়া ইউনিয়নে শতাধিক বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে প্রজেক্টটি উদ্বোধন ঘোষণা করেন দূর্বার তারুণ্যের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মদ আবু আবিদ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যোগদান করেন করোনা প্রতিরোধক বুথের উদ্ভাবক হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর বলেন, পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখতে বৃক্ষের কোন বিকল্প নেই। তাই গাছ রোপন ও এর পরিচর্যা উভয়ই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। দূর্বার তারুণ্য এর সকল ব্যতিক্রমী চিন্তাভাবনাকে আমরা বরাবরই স্বাগত জানাই। এ ধরনের প্রজেক্টের মাধ্যমে অনলাইন আসক্ত তরুণরা সমাজ ও দেশ নিয়ে ভাবনায় ব্যস্ত থাকবে। দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে তারা নিজেকে সম্পৃক্ত রাখবে। গাছের যত্ন নেয়ার বিষয়ে ‘আমরা মালি’ তো শুধুমাত্র একটা দেখানো মাধ্যম। এই মাধ্যমে সবাই গাছের পরিচর্যার বিষয়ে সচেতন হলে সার্থক হবে আমাদের প্রজেক্ট।

প্রজেক্ট সম্পর্কে বলতে যেয়ে মুহাম্মদ আবু আবিদ বলেন, প্রতিবছরই বাংলাদেশে লাখ লাখ বৃক্ষ রোপন করা হয়। যত্নের অভাবে শেষ পর্যন্ত পরিবেশে টিকে থাকে খুবই কম। পুরো বাংলাদেশে আমাদের সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবীর সংখ্যা ৮ হাজার ছাড়িয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে দূর্বার তারুণ্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমাদের প্রতিটা সদস্য একটি করে গাছ লাগাবে এবং মালির মতোই সেই গাছের যত্ন নিবে৷ আমরা এই প্রজেক্ট চালু করেছি মানে শুধুমাত্র আমরাই কাজটি করতে পারব এমন ধারণা ভুল। আমাদের কনসেপ্ট হল- গাছ লাগান ও তার পরিচর্যা করুন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, দূর্বার তারুণ্য এর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শেখ মুহাম্মদ আরিফ উল্লাহ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ জিহাদুল ইসলাম, মোঃ ইবরাহীম, মোঃ সাদ্দাম হোসেন, মোঃ রুবেল, মোঃ অহিদুল ইসলাম, মোঃ সামছুদ্দীন, মোঃ রুমন মিয়া, মোঃ আজিম উদ্দিন চৌধুরী, মোঃ মনজুর মোরর্শেদ, মোঃ সালমানসহ জেলা স্থানীয় নেতৃত্ববৃন্দ ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

দূর্বার তারুণ্যের মালি নামক প্রজেক্টের আইডিয়াকে ধারণ করে বৃক্ষ রোপন ও তার সঠিক পরিচর্যার মাধ্যমেই আমাদের দেশ তথা বিশ্বকে সবুজায়ন করা সম্ভব বলে মনে করেন উদ্যোগক্তারা।

এসএস/এমএইচ/বাংলাবার্তা