জরাজীর্ণ ঘরে প্রিন্টার বসিয়ে ছাপানো হচ্ছিল সিগারেটের কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্প

86

বাংলাবার্তা প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানা এলাকায় সিগারেটের জাল স্ট্যাম্প তৈরির সময় ৫ জন পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এসময় প্রায় পাঁচ কোটি টাকার সিগারেটের জাল স্ট্যাপসহ ছাপা কাজে ব্যবহৃত ৪টি মেশিন জব্দ করা হয়েছে।

বুধবার (১৫ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে চান্দগাঁওয়ের পাক্কার দোকানের উত্তর পার্শ্বে মিদি বাড়ি আব্দুর সবুরের টিনশেডে বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তবে মূল হোতা আরিফকে ঘটনাস্থলে পাওয়া যায়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি উত্তর) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার শেখ সাব্বির হোসেন৷

গ্রেফতার পাঁচজন হলেন- মো. ইয়াসিন (২৪), মো. রিফাত উদ্দিন (২৫), মো. নাসির (৩৮), মোঃ হাসন তারেক (২৬) ও মো. আরিফ হোসেন (২৮)। পলাতক রয়েছেন মূল মালিক মো. আরিফ (৩০)।

ডিবি পুলিশ জানায়, গোপনে সংবাদে অভিযান পরিচালনা করতে গিয়ে দেখা যায়, ভাড়া নেওয়া টিনশেডে ওই বাসায় প্রেস মিশিন বসিয়ে অবৈধভাবে সিগারেটের প্যাকেটে লাগানো শুল্ক কর পরিশোধিত রাজস্ব জাল স্ট্যাম্প তৈরি করা হচ্ছে। এসময় আটকদের সরকারের রাজস্ব স্ট্যাম্প তৈরি সংক্রান্তে ডকুমেন্ট দেখাতে বললে, তারা সেটি দেখাতে ব্যর্থ হয়। পরে ‘গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, শুল্ক কর পরিশোধিত জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ১০টি ও ২০টি সিগারেট’ লেখা দুই ধরনের মোট ৮ লক্ষ ৮০ টি জাল স্ট্যাম্পসহ ছাপা কাজে ব্যবহৃত চারটি মেশিন জব্দ করা হয়ছে। জব্দ স্ট্যাম্পের আনুমানিক মূল্য প্রায় ৫ কোটি টাকা। এবং মেশিন চারটির মূল্য ৪০ লক্ষ টাকা।

আটকদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, পলাতক আসামি ও মূল হোত মো. আরিফের (৩০) সহায়তায় তারা জেনে বুঝে পরস্পর যোগসাজশে অবৈধ লাভের উদ্দেশে জাল রাজস্ব স্ট্যাম্প তৈরি করে বিভিন্ন সিগারেট কোম্পানির কাছে বিক্রয় ও বাজারজাত করত।

ডিবি উত্তরে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার শেখ সাব্বির হোসেন বলেন, টিনশেড ঘরে প্রিন্টার মেশিন বসিয়ে সিগারেটের জাল স্ট্যাম্প তৈরির করা হচ্ছিল। পরে অভিযান করে ৫ জনকে ৮ লাখ ৮০ টি সিগারেটের জাল স্ট্যাম্পসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। এসব স্ট্যাম্পের আনুমানিক মূল্য প্রায় পাঁচ কোটি টাকা। তাদেরকে আদালতে পাঠানো হচ্ছে।

তাদের সঙ্গে আর কারা জড়িত আছে, এসব বিষয়সহ বিস্তারিত জানতে আদালতে তাদের বিরুদ্ধে রিমান্ডে আবেদন করা হবে। পরে রিমান্ডে এসে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করে হবে বলে জানান গোয়েন্দা পুলিশের এই কর্মকর্তা।