চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের সঙ্গে স্কুল বাস মনিটরিং টিমের সৌজন্য সাক্ষাৎ

116

বাংলাবার্তা প্রতিবেদক

স্মার্ট ডিস্ট্রিক্ট ইনোভেশন চ্যালেঞ্জ ২০২৩ উদ্ভাবনী প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়ায় চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকের সঙ্গে সৌজন্যসাক্ষাত করেছে স্কুল বাস মনিটরিং টিম। এ সময় জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান তারা।

রোববার (২২ অক্টোবর) দুপুরে চট্টগ্রাম নগরীর সার্কিট হাউসে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে এই সৌজন্যসাক্ষাৎ করে স্কুল মনিটরিং টিম।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে প্রথম হওয়ার স্বীকৃতিস্বরূপ ৮০ লাখ টাকার চেক গ্রহণ করেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক।

সৌজন্যসাক্ষাতে জেলা প্রশাসকের কাছে চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের জন্য গণপরিবহনে ‘হাফ বাস ভাড়া’ চালুর দাবি জানানো হয়।

এ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘অতি শীঘ্রই সব পরিবহন মালিক সমিতি এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবো।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নূরুল আজিম রনি, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহসানুল হায়দার চৌধুরী।

নূরুল আজিম রনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের স্কুলবাস উপহার দিয়েছিলেন। আমরা তাকে স্মার্ট স্কুল বাস উপহার দিয়েছি। এসব বাসে শিক্ষার্থীরা স্মার্ট কার্ড ব্যবহার করে যাতায়াত করবে। একইসঙ্গে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ বাস ভাড়ার করার দাবি জানাচ্ছি।’

সাক্ষাতের সময় স্কুল মনিটরিং টিমের সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মিনহাজ চৌধুরী, ইনজামুল ইমু, মিনহাজুল ইসলাম, সাজ্জাদুল ইসলাম সোহাগ, শাকিল মাহামুদ, আরিফ উদ্দিন, জালাল উদ্দিন জুবায়ের, সাদ বিন, মারুফ উদ্দিন, আরিয়ান তূর্য, সামিয়া আমিন, আলিফ, শিহাব, সিফাত, মুনতাসির, ফারদিন,আসিফ।

যা আছে স্মার্ট স্কুল বাসে

৭৮ আসনবিশিষ্ট ১০টি ডবল ডেকার বাসে স্মার্ট টেকনোলজির মধ্যে জিপিএস ট্র্যাকার, আইপি ক্যামেরা, এআই ব্যবহার করে শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাতায়াতের ক্ষেত্রে বাসে ওঠা-নামার সময় অভিভাবকের ফোনে স্বয়ংক্রিয় এসএমএস প্রদান, বাসে শিক্ষার্থীদের অবস্থান মনিটরিং, স্কুল টাইমিং সমন্বয়ের মাধ্যমে স্বল্প খরচে স্কুল-কলেজে যাত্রা নিশ্চিত করা হবে।

স্কুল শিক্ষার্থীরা নিজেদের কাছে থাকা স্মার্ট কার্ডের ছোঁয়ায় ভাড়া পরিশোধ করতে পারবে। বিকাশ বা নগদের মতো পরিচিত প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে রিচার্জ করা যাবে এসব স্মার্ট কার্ডগুলোতে।